​গুলশানে তরুণীর লাশ উদ্ধার, মামলার প্রতিবেদন ৩০ মে ​গুলশানে তরুণীর লাশ উদ্ধার, মামলার প্রতিবেদন ৩০ মে – Sabuj Bangla Tv
  1. shahinit.mail@gmail.com : admin :
  2. khandakarshahin@gmail.com : সবুজ বাংলা টিভি : সবুজ বাংলা টিভি
মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ০৯:৪৬ পূর্বাহ্ন
নোটিশ-
বাংলাদেশের প্রথম অনলাইন টিভি চ্যানেল সবুজবাংলা টিভি এর জেলা/উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে...

​গুলশানে তরুণীর লাশ উদ্ধার, মামলার প্রতিবেদন ৩০ মে

সবুজ বাংলা টিভি
  • প্রকাশ কাল | বুধবার, ২৮ এপ্রিল, ২০২১
  • ১৭৩ পাঠক

রাজধানীর গুলশানে বিলাসবহুল ফ্ল্যাটে মোসারাত জাহান মুনিয়া (২১) নামে এক তরুণীকে হত্যার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় প্রতিবেদন দাখিলর জন্য আগামী ৩০ মে দিন ধার্য করেছেন আদালত। আদালতের সংশ্লিষ্ট থানার সাধারণ নিবন্ধন (জিআর) শাখা এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

মঙ্গলবার (২৭ এপ্রিল) ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আবু সুফিয়ান মো. নোমানের আদালত মামলার এজহার গ্রহণ করেন। এরপর মামলাটি তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিল করার জন্য আগামী ৩০ মে দিন ঠিক করেন।

এছাড়া মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এ মামলার আসামি বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) সায়েম সোবহান আনভীরের বিদেশ যাত্রার ওপর নিষেধাজ্ঞা চেয়ে আদালতে আবেদন করেন। তার আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট শহিদুল ইসলামের আদালত তা মঞ্জুরে করেন।

গতকাল সোমবার (২৬ এপ্রিল) সন্ধ্যায় গুলশান ২ নম্বরের ১২০ নম্বর সড়কের ফ্ল্যাট থেকে মোসারাত জাহানের ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় সোমবার রাতেই রাজধানীর গুলশান থানায় ৩০৬ ধারায় ‘আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেয়া’র অভিযোগে বসুন্ধরার এমডির বিরুদ্ধে মামলা করেন মোসারাতের বড় বোন নুসরাত জাহান। মামলা নম্বর২৭।

এ মামলায় আসামি সায়েম সোবহানকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাসান মামলাটির তদন্ত করছেন। এরইমধ্যে ঘটনাস্থল থেকে সিসিটিভির ফুটেজ ও মুনিয়ার ব্যবহৃত ডিজিটাল ডিভাইসগুলো সংগ্রহ করা হয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, মুনিয়ার গ্রামের বাড়ি কুমিল্লায়। তার বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা শফিকুর রহমান। মেয়েটির পরিবার কুমিল্লায় থাকে। এখানে গুলশানের ওই ফ্ল্যাটে তিনি একাই থাকতেন।

আমাদের সংবাদটি শেয়ার করুন..

এ পাতার আরও খবর

Sabuj Bangla Tv © All rights reserved- 2011| Developed By

Theme Customized BY WooHostBD