বাংলাদেশে অনুমোদন পেল চীনের টিকা বাংলাদেশে অনুমোদন পেল চীনের টিকা – Sabuj Bangla Tv
  1. shahinit.mail@gmail.com : admin :
  2. khandakarshahin@gmail.com : সবুজ বাংলা টিভি : সবুজ বাংলা টিভি
শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:০৯ অপরাহ্ন
নোটিশ-
বাংলাদেশের প্রথম অনলাইন টিভি চ্যানেল সবুজবাংলা টিভি এর জেলা/উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে...

বাংলাদেশে অনুমোদন পেল চীনের টিকা

সবুজ বাংলা টিভি
  • প্রকাশ কাল | শুক্রবার, ৩০ এপ্রিল, ২০২১
  • ১৬১ পাঠক

চীনা কোম্পানি সিনোফার্ম উদ্ভাবিত করোনাভাইরাসের টিকা জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন দিল বাংলাদেশ সরকার। ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মাহবুবুর রহমান বৃহস্পতিবার(২৯ এপ্রিল) এ কথা জানান।

এর আগে রাশিয়ার তৈরি ‘স্পুৎনিক-ভির’ ট্কিাও একই কারণে অনুমোদন দেওয়া হয়। ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট থেকে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রেজেনেকার টিকার সরবরাহ সঙ্কটে টিকাদান কার্যক্রম নিয়ে জটিলতার মধ্যে দ্রুত দুটি নতুন টিকার অনুমোদন দেওয়া হল।

তিনি জানান, চীন প্রথম দফায় ৫ লাখ ডোজ দিচ্ছে। এর বাইরে আগামী দুই সপ্তাহে চীনের ভ্যাকসিন আসার সম্ভাবনা আছে।

মাহবুবুর রহমান বলেন, “আজকে আমরা সিনোফার্মের টিকার অনুমোদন দিলাম। এই টিকার প্রথম ডোজ নেওয়ার ২৮ দিন পর দ্বিতীয় ডোজ দিতে হবে।”

ওষুধ প্রশাসনের মহাপরিচালক বলেন, সিনোফার্মের টিকাটি চীনসহ বিভিন্ন দেশে অনুমোদিত। এই টিকার সব ডাটা আমরা পেয়েছি, সরকারিভাবে আমাদের কাছে পাঠানো হয়েছে। এগুলো আমাদের টেকনিক্যাল এক্সপার্টদের দিয়ে আমরা যাচাই-বাছাই করেছি।

তিনি বলেন, আমাদের ১২ সদস্য বিশিষ্ট একটি পাবলিক হেলথ ইমার্জেন্সি কমিটি আছে। তারা টিকাটি পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে বিশ্লেষণ করেছে। আমরা দেখতে পেয়েছি এর কার্যকরী ক্ষমতা অনেক ভালো।

ওষুধ প্রশাসনের ডিজি বলেন, টিকাটি পয়েন্ট ফাইভ এমএল করে ২৮ দিনের গ্যাপে দুইবার দিতে হবে। এটার ফেজ ওয়ান ও ফেজ টু চায়নাতে হয়েছে। ফেজ থ্রি ট্রায়াল ৫৫ হাজার মানুষের ওপর বিশ্বের পাঁচটি দেশে হয়েছে। এরপর এটির নথিগুলো আমরা যাচাই করেছি, আমাদের একটি টেকনিক্যাল টিম আছে, সেখানে আমরা উপস্থাপন করেছি। গতকাল (বুধবার) আমরা এটা রিভিউ করেছি, রিপোর্টগুলো দেখেছি। সার্বিক বিষয় বিবেচনা করে আমাদের কমিটি সুপারিশ করেছে।

মাহবুবুর রহমান বলেন, ইতোমধ্যে ৫ লাখ ডোজ চীন অনুদান হিসেবে দিয়েছে। এক দুই সপ্তাহের মধ্যেই উপহারের পাঁচ লাখ টিকা পাওয়া যাবে। তারপর পর্যবেক্ষণ করে বিতরণ শুরু হবে। এরপর জি টু জি বেসিসে সরকার কেবল কিনবে।

তিনি বলেন, দেশে টিকা উৎপাদনে সক্ষমতা রয়েছে তিনটি কোম্পানির। চীনের টিকাও উৎপাদন হতে পারে, সরকারি পর্যায়ে কথা বার্তা চলছে। এর মধ্যে একটি কোম্পানি মাসে ৮০ লাখ ডোজ টিকা উৎপাদন করতে সক্ষম। ফলে আমরা রফতানিও করতে পারব। কাঁচামাল আসলে এক থেকে দেড় মাসের মধ্যে উৎপাদন শুরু হতে পারে, আর টেকনোলজি হস্তান্তর হলে উৎপাদনে যেতে ছয় মাস সময় লাগবে।

আমাদের সংবাদটি শেয়ার করুন..

এ পাতার আরও খবর

Sabuj Bangla Tv © All rights reserved- 2011| Developed By

Theme Customized BY WooHostBD