ভারতে শনাক্ত বেড়েছে, কমেছে মৃত্যু ভারতে শনাক্ত বেড়েছে, কমেছে মৃত্যু – Sabuj Bangla Tv
  1. shahinit.mail@gmail.com : admin :
  2. khandakarshahin@gmail.com : সবুজ বাংলা টিভি : সবুজ বাংলা টিভি
রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:২৩ পূর্বাহ্ন
নোটিশ-
বাংলাদেশের প্রথম অনলাইন টিভি চ্যানেল সবুজবাংলা টিভি এর জেলা/উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে...

ভারতে শনাক্ত বেড়েছে, কমেছে মৃত্যু

সবুজ বাংলা টিভি
  • প্রকাশ কাল | শুক্রবার, ৪ জুন, ২০২১
  • ১৬৬ পাঠক

করোনাভাইরাসে বিপর্যস্ত ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্ত কিছুটা বাড়লেও কমেছে মৃত্যু। গত ২৪ ঘণ্টায় (বুধবার) ভারতে ১ লাখ ৩৪ হাজার ১৫৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়। আগের দিন মঙ্গলবার শনাক্ত হয় ১ লাখ ৩২ হাজার ৭৮৮ জনের করোনা। গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে করোনায় মারা গেছেন ২ হাজার ৮৮৭ জন। আগের দিন মঙ্গলবার মারা যান ৩ হাজার ২০৭ জন।

সবশেষ এ নিয়ে ভারতে করোনায় সংক্রমিত মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ কোটি ৮৪ লাখ ৪১ হাজার ৯৮৬। মারা যাওয়া ব্যক্তির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ লাখ ৩৭ হাজার ৯৮৯ জন। আজ বৃহস্পতিবার (৩ জুন) এনডিটিভি অনলাইনের এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়।

কিছুদিন ধরেই ভারতে ২ লাখের নিচে করোনা রোগী শনাক্ত হচ্ছে। সোমবার শনাক্ত হয় ১ লাখ ২৭ হাজার ৫১০ জনের। গত ৯ এপ্রিলের পর দেশটিতে এদিনই সবচেয়ে কম রোগী শনাক্ত হয়। এদিন মারা যান ২ হাজার ৭৯৫ জন। রবিবার ১ লাখ ৫২ হাজার ৭৩৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়। মারা যান ৩ হাজার ১২৮ জন।

গত মার্চের মাঝামাঝিতে ভারতে এক দিনে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ছিল ২০ হাজারের কাছাকাছি। তারপর দেশটিতে সংক্রমণ লাফিয়ে বাড়ে। গত মাসে ভারতে এক দিনে সর্বোচ্চ ৪ লাখ ১৪ হাজারের বেশি রোগী শনাক্ত হয়। ২৪ মে ভারতে দৈনিক করোনায় সংক্রমিত রোগী শনাক্তের সংখ্যা ১৪ এপ্রিলের পর প্রথম দুই লাখের নিচে নামে।

বিশ্বের কোনো দেশে এক দিনে সর্বোচ্চসংখ্যক করোনা রোগী শনাক্তের রেকর্ড ভারতের দখলে। ২২ এপ্রিলের আগপর্যন্ত এ রেকর্ড যুক্তরাষ্ট্রের দখলে ছিল। যুক্তরাষ্ট্রে গত জানুয়ারিতে এক দিনে সর্বোচ্চ ২ লাখ ৯৭ হাজার ৪৩০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছিল।

ওয়ার্ল্ডোমিটারস শুরু থেকেই বিশ্বের বিভিন্ন দেশের করোনাবিষয়ক হালনাগাদ তথ্য দিয়ে আসছে। ওয়ার্ল্ডোমিটারসের সবশেষ তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বে করোনায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ যুক্তরাষ্ট্র। যুক্তরাষ্ট্রের পরেই রয়েছে ভারত। ভারতের পর রয়েছে ব্রাজিল। আর মৃত্যুর দিক দিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রাজিলের পরেই রয়েছে ভারত।

করোনা পরিস্থিতির মারাত্মক অবনতির মুখে ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়। পাশাপাশি টিকাদান কার্যক্রম জোরদার করা হয়। গত ১ মে থেকে সব প্রাপ্তবয়স্ক নাগরিককে (১৮ বছরের ঊর্ধ্বে) টিকাদানের কর্মসূচি হাতে নিয়েছে ভারত। তবে বিভিন্ন রাজ্য টিকার সংকটের কথা জানাচ্ছে।

ভারতে করোনার সংক্রমণ ভয়াবহ আকার ধারণ করায় দেশটি তার সাম্প্রতিক ইতিহাসে সবচেয়ে বড় স্বাস্থ্যগত চ্যালেঞ্জের মুখে পড়ে। অক্সিজেন, জরুরি ওষুধ, হাসপাতালে শয্যার অভাবসহ নানা গুরুতর সংকটে দেশটির স্বাস্থ্যব্যবস্থা ভেঙে পড়ার উপক্রম হয়। এ অবস্থায় ভারতের পাশে এসে দাঁড়ায় বিশ্বের বিভিন্ন দেশ ও সংস্থা।

আমাদের সংবাদটি শেয়ার করুন..

এ পাতার আরও খবর

Sabuj Bangla Tv © All rights reserved- 2011| Developed By

Theme Customized BY WooHostBD