নড়াইলে গ্রাহকের দুই কোটি টাকা নিয়ে লাপাত্তা ব্যাংক এশিয়ার খায়রুল নড়াইলে গ্রাহকের দুই কোটি টাকা নিয়ে লাপাত্তা ব্যাংক এশিয়ার খায়রুল – Sabuj Bangla Tv
  1. shahinit.mail@gmail.com : admin :
  2. khandakarshahin@gmail.com : সবুজ বাংলা টিভি : সবুজ বাংলা টিভি
সোমবার, ১৪ জুন ২০২১, ১২:৩৭ অপরাহ্ন

নড়াইলে গ্রাহকের দুই কোটি টাকা নিয়ে লাপাত্তা ব্যাংক এশিয়ার খায়রুল

সবুজ বাংলা টিভি
  • প্রকাশ কাল | বৃহস্পতিবার, ১০ জুন, ২০২১
  • ১২ পাঠক
নড়াইলের কালিয়া উপজেলার চাচুঁড়ী-পুরুরিয়ায় ব্যাংক এশিয়ার এজেন্ট ব্যাংকিং শাখার গ্রাহকদের প্রায় দুই কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে লাপাত্তা হয়েছে এজেন্ট খায়রুল বাশার। ঘটনাটি জানাজানি হলে তালাবদ্ধ এজেন্ট ব্যাংকিং অফিসের সামনে গ্রাহকরা ভীড় জমাতে থাকে। ইতিমধ্যে ব্যাংকের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ শাখাটি পরিদর্শন করেছেন।

জানাগেছে, ব্যাংক এশিয়ার এজেন্ট ব্যাংকিংয়ের কালিয়া উপজেলার চাচুড়ী-পুরুলিয়া শাখাটি ২০১৯ সালের মাঝামাঝির দিকে স্থাপন করা হয়। এজেন্ট খায়রুর বাশার জনপ্রতি ৫ থেকে ১০ লাখ টাকা হারে জামানত নিয়ে শাখাটিতে ১০ জন কর্মচারী নিয়োগ দেন। বর্তমানে শাখাটিতে ডিপিএস, মেয়াদি আমানত ও সঞ্চয়ী হিসাব মিলে প্রায় সহ্রাধিক গ্রাহক নিয়মিত লেনদেন করে থাকেন। এর মধ্যে বেশিরভাগই মেয়াদি আমানতের গ্রাহক রয়েছেন।
এছাড়া প্রতি মাসে ২ হাজারেরও বেশি পল্লী বিদ্যুৎ বিভাগের গ্রাহক বিল পরিশোধ করে থাকেন। কিন্তু গত ৩ মাস যাবত বিদ্যুৎ গ্রাহকারা বিদ্যুৎ বিল পরিশোধের পরও বিদ্যুৎ বিল বকেয়া থাকার নোটিশ পাচ্ছেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

অপরদিকে জানা গেছে, ওই ব্যাংকের নিয়মিত গ্রাহকরা গত বেশকিছু দিন যাবত তাদের হিসাব থেকে টাকা তুলতে পারছেন না। এছাড়া মাসিক মুনাফা হিসাবের গ্রাহকরা মুনাফার টাকা তুলতে না পারার কারণে গত এক সপ্তাহ যাবত এলাকায় এজেন্ট খায়রুল বাশারকে নিয়ে নানা গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে। সর্বশেষ গত সোমবার উপজেলার চাচুড়ী গ্রামের মফিজুল হক, পুরুরিয়া গ্রামের জাহাঙ্গীর আলম, ডহরচাচুড়ী গ্রামের পিটু বিশ্বাস টাকা তুলতে না পেরে খোঁজ নিয়ে জানতে পারে তাদের হিসাব নম্বরে কোন টাকা জমা নেই। গ্রাহকদের হিসাব নম্বর থেকে টাকা উধাও হওয়া ও বিদ্যুৎ বিলের টাকা জমা না করে হাতিয়ে নেয়ার ঘটনাটি ওই এলাকায় দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। তারপর গ্রাহকরা সোমবার বিকালে ওই এজেন্ট অফিসে ভীড় জমাতে শুরু করে। ততক্ষণে প্রায় দুই কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে এজেন্ট খায়রুল বাশার পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়েছে বলে ওই ব্যাংকের গ্রাহকরা অভিযোগ করেছেন।
যশোর পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি ২ এর কালিয়া আঞ্চলিক অফিসের ডিজিএম মো. মমিনুর রহমান বিশ্বাস বলেন, ওই এলাকার প্রায় ২ হাজার বিদ্যুৎ গ্রাহক ওই ব্যাংকে বিদ্যুৎ বিল নিয়মিত পরিশোধ করে থাকে। কিন্তু গত মার্চ, এপ্রিল ও মে মাসে ওইসব গ্রাহকদের নিকট থেকে বিদ্যুৎ বিল বাবদ প্রায় ৫ লক্ষাধিক টাকা ওই এজেন্ট গ্রহণ করলেও তা ব্যাংকে জমা দেননি। ওই সমস্ত গ্রাহকদের বিদ্যুৎ বিল বকেয়া রয়েছে। ঘটনাটি যথাযথ কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে।
তবে ব্যাংকটির এজেন্ট খায়রুল বাশারের মোবাইল বন্ধ পাওয়া গেছে। পরিবারের সদস্যরাও গণমাধ্যমকর্মীদের এড়িয়ে চলছেন।
এ ব্যাপারে ব্যাংক এশিয়া নড়াইল জেলা ব্যবস্থাপক ফিরোজ হাসান বলেন, বিষয়টি শোনার পর আমাদের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা শাখাটি পরিদর্শন করেছেন। ইতিমধ্যে এজেন্ট কতৃপক্ষ ও আমাদের ব্যাংক কর্তৃপক্ষ বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করে দিয়েছি। অন্যান্য সমস্যাও সমাধানের চেষ্টা চলছে।
কালিয়া থানার ওসি সেখ কনি মিয়া বলেন, এ বিষয়টি শুনেছি। কেউ অভিযোগ করেননি। তারপরও বিষয়টি তদন্ত করছি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আমাদের সংবাদটি শেয়ার করুন..

এ পাতার আরও খবর

Categories

Sabuj Bangla Tv © All rights reserved- 2011| Developed By

Theme Customized BY WooHostBD