মাশরুম কেন খাবেন মাশরুম কেন খাবেন – Sabuj Bangla Tv
  1. shahinit.mail@gmail.com : admin :
  2. khandakarshahin@gmail.com : সবুজ বাংলা টিভি : সবুজ বাংলা টিভি
বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৪:৫৬ পূর্বাহ্ন
নোটিশ-
বাংলাদেশের প্রথম অনলাইন টিভি চ্যানেল সবুজবাংলা টিভি এর জেলা/উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে...

মাশরুম কেন খাবেন

সবুজ বাংলা টিভি
  • প্রকাশ কাল | শুক্রবার, ৩ নভেম্বর, ২০২৩
  • ৮৩ পাঠক

প্রকৃতি আমাদের গাছপালা আকারে অনেক ধরনের খাদ্য উপাদান দিয়েছে। মাশরুম তার মধ্যে একটি হলো মাশরুম।

বর্তমানে মাশরুমের চাষ হয়। বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে নানা রোগ শরীরে বাসা বাধে এই চিন্তা আমাদের অসুস্থতা আরও হাজার গুণ বাড়িয়ে দেয়। এই চিন্তা মাথা থেকে নামিয়ে আনার দায়িত্ব অতি পরিচিত মাশরুমের ওপর ছেড়ে দিতে পারি।

মাশরুমের সুস্বাদু খাবার:

মাশরুম ফ্রাই, মাশরুম মাংস, মাশরুম মাছ, মাশরুম সবজি, মাশরুম স্যুপ, মাশরুম নুডুলস, মাশরুম অমলেট, মাশরুম ভর্তাসহ বিভিন্ন ধরনের ফাস্টফুড মাশরুমের জনপ্রিয় সুস্বাদু খাবার তৈরি করা যায়।

এবার জেনে নিন মাশরুমের কিছু উপকারি গুণের কথা:

রক্তের কোলেস্টেরল: মাশরুম আপনাকে দেবে বিশুদ্ধ হালকা প্রোটিন। কারণ এটি কোলেস্টেরলমুক্ত এবং এতে কার্বোহাড্রেটের পরিমাণও কম। এর ফাইবার এবং বিভিন্ন এনজাইম রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্র কমাতে সাহায্য করে। মাশরুমের প্রোটিন পরিপাকের সময় কোলেস্টেরল দূর করতে সাহায্য করে।

স্তন ও প্রোস্টেট ক্যানসার: মাশরুম স্তন ও প্রোস্টেট ক্যানসার প্রতিরোধে খুবই কার্যকরী। কারণ এতে রয়েছে বিটা-গ্লুকাগন এবং লিনোলিক এসিড, যাদের এন্টি ক্যানসার এক্টিভিটি রয়েছে। লিনোলিক এসিড এস্ট্রোজেন হরমোনের ক্ষতিকারক প্রভাব প্রশমিত করে, যা স্তন ক্যানসারের সবচেয়ে বড় কারণ। আর বিটা-গ্লুকাগন প্রোস্টেট ক্যানসার প্রতিহত করে। এছাড়াও মাশরুম হচ্ছে খুবই দুষ্প্রাপ্য ধাতু সেলেনিয়ামের একটি বড় উৎস,যা ক্যানসার তৈরিতে বাধা প্রদান করে।

ডায়বেটিস: ডায়বেটিসে মাশরুম হচ্ছে খুবই কম ক্যালরির একটি আদর্শ খাদ্য। মাশরুমে নেই কোনো চর্বি ও কোলেস্টেরল, খুবই কম কার্বোহাইড্রেট, প্রচুর প্রোটিন, ভিটামিন এবং মিনারেলস, প্রচুর পানি এবং ফাইবার। সবচেয়ে আশ্চর্যজনক ব্যাপার হলো মাশরুমে রয়েছে প্রাকৃতিক ইনসুলিন এবং এনজাইম যা রক্তে গ্লুকোজের পরিমাণ কমাতে সাহায্য করে। মাশরুমে বিভিন্ন রাসায়নিক বস্তু রয়েছে যেগুলো লিভার, অগ্নাশয় এবং অন্যান্য গ্রন্থিকে সক্রিয় করে, যা শরীরে ইনসুলিন তৈরি এবং এর সঠিক ব্যবহার নিশ্চিত করে। এছাড়াও মাশরুম বিভিন্ন এন্টিবায়োটিক সমৃদ্ধ যা ডায়বেটিস রোগীদের বিভন্ন জীবাণু সংক্রমণ প্রতিহত করে।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা: মাশরুম আরগোথায়োনিন নামক একটি শক্তিশালী এন্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ, যা ফ্রি রেডিকেলস দূর করে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে। মাশরুমে বিভিন্ন প্রকার প্রকৃতিক এন্টিবায়োটিক রয়েছে যা জীবাণুর সংক্রমণ থেকে রক্ষা করে। মাশরুমের আলসার প্রতিরোধী ভূমিকাও রয়েছে। এর ভিটামিন এ, বি কমপ্লেক্স এবং সি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে শক্তিশালী করে।

ওজন কমায়: আপনি হয়তো বিশ্বাস করতে চাইবেন না মাশরুমের হালকা প্রোটিন আপনার ওজন কমিয়ে শরীরকে সুগঠিত করেতে পারে। এসব হালকা প্রোটিন পরিপাকের সময় প্রচুর পরিমাণ চর্বি ভেঙে ফেলে। তাই মাশরুম থেকে আপনি পেতে পারেন জিরো ফ্যাট ও জিরো ক্যালরির আদর্শ খাদ্য।

অন্যান্য ভূমিকা: মাশরুম হচ্ছে একমাত্র সবজি যা সক্রিয় ভিটামিন ‘ডি’র উৎস। এছাড়াও মাশরুমে রয়েছে ক্যালসিয়াম (হাড়ের জন্য উপকারী), আয়রন (রক্তশূন্যতা দূর করে), পটাসিয়াম (উচ্চরক্তচাপ কমায়), কপার (এন্টিব্যাকটেরিয়াল) এবং সেলেনিয়াম (হাড়, দাঁত, নখ, চুলের জন্য উপকারী এবং এন্টিঅক্সিডেন্ট) মাশরুমের হাজার হাজার গুণের কথা আবিষ্কৃত হয়েছে যা লিখে শেষ করা যাবে না। এর সুফল ভোগ করতে নিজেই পরখ করে দেখুন না, আর মাশরুমকে যোগ করুন আপনার খাদ্যতালিকার অবিচ্ছেদ্য উপাদান হিসেবে।

আমাদের সংবাদটি শেয়ার করুন..

এ পাতার আরও খবর

Sabuj Bangla Tv © All rights reserved- 2011| Developed By

Theme Customized BY WooHostBD